Home / অন্যান্য / আগোরার মালিকের কারাদণ্ড ও জামিন

আগোরার মালিকের কারাদণ্ড ও জামিন

নিয়জ রহিম (ছবি- সংগৃহীত)

ভেজাল ঘি বিক্রির অভিযোগে সুপার শপ আগোরার চেয়ারম্যান নিয়াজ রহিমকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। ঢাকার বিশুদ্ধ খাদ্য আদালতের বিচারক মাহবুব সোবহানী গতকাল এক রায়ে নিয়াজ রহিমকে এক বছরের কারাদণ্ডাদেশ দেন। পাশাপাশি তাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানাও করা হয়। জরিমানার অর্থ অনাদায়ে আদালত তাকে আরো একমাসের কারাদণ্ড দেন। ২০০৮ সালে দায়ের করা দু’টি মামলার রায়ে তাকে এ সাজা দেয়া হয়েছে।

বিশুদ্ধ খাদ্য আদালত সূত্র জানায়, রায় দেওয়ার সময় নিয়াজ রহিম আদালতে উপস্থিত ছিলেন। তিনি রহিম আফরোজ গ্রুপের একজন পরিচালক। রায়ের পর আদালত থেকে তাকে কারাগারে পাঠিয়ে দেয়া হয়। ভেজাল খাদ্য বিক্রির অভিযোগে বিশুদ্ধ খাদ্য আদালতে ২০০৮ সালে দু’টি মামলা হয়েছিলো। দু’টিতেই ভেজাল ঘি বিক্রির অভিযোগ আনা হয়েছিলো আগোরার বিরুদ্ধে। ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন ভবনের ১০ তলায় আদালতে ঐ দু’টি মামলার শুনানি অনুষ্ঠিত হয় গতকাল।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের খাদ্য পরিদর্শক ফখরুদ্দিন বলেন: ২০০৮ সালে সুপার শপ আগোরা কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে কুষ্টিয়া গাওয়া ঘি ও স্পেশাল গাওয়া ঘি নামে ভেজাল ঘি বিক্রির অভিযোগে মামলা দু’টি দায়ের করেছিলাম। আদালতে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় আগোরার চেয়ারম্যান নিয়াজ রহিমের বিরুদ্ধে আদালত রায় দেন। রায়ে তাকে এক বছরের কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা এবং জরিমানা অনাদায়ে আরও এক মাসের কারাদণ্ডের আদেশ দেন আদালত। রায়ের সময় নিয়াজ রহিম আদালতে উপস্থিত ছিলেন। রায়ের পর তাকে কেরানীগঞ্জের ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এ ব্যাপারে শেষ খবর হচ্ছে, আদালত আগোরার মালিকের অসুস্থতার কথা বিবেচনা করে জজ কোর্টে আপিল করার শর্তে জামিন দিয়েছে।  তিনি সূত্র: বাংলা ট্রিবিউন ও বিডিনিউজ২৪।

About superadmin

Check Also

কাশিমপুর কারাগারে ফাঁসির আসামির মৃত্যু

গাজীপুরের কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কেন্দ্রীয় কারাগারের ৯২ বছরের এক ফাঁসির আসামির মৃত্যু হয়েছে। কারাগারের জেলার ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *