Breaking News
Home / আন্তর্জাতিক / পাকিস্তানের মাটি আফগান যুদ্ধের ময়দান হবে না: পররাষ্ট্রমন্ত্রী আসিফ

পাকিস্তানের মাটি আফগান যুদ্ধের ময়দান হবে না: পররাষ্ট্রমন্ত্রী আসিফ

যুক্তরাষ্ট্রের আফগান যুদ্ধনীতিতে ইসলামাবাদের সমর্থনকে ‘বড় ভুল’ আখ্যা দিয়েছেন পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী খাজা আসিফ। ওয়াল স্ট্রিট জার্নালকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে যুক্তরাষ্ট্রের উদ্দেশে তিনি বলেছেন: পাকিস্তানের মাটিকে আফগান যুদ্ধের ময়দান বানাতে দেয়া হবে না। সাক্ষাৎকারে পাকিস্তান-যুক্তরাষ্ট্র দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক নিয়েও প্রশ্ন তোলেন আসিফ।

সম্প্রতি এক টুইটার বার্তায় মার্কিন ট্রাম্প পাকিস্তানের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার ও সন্ত্রাসবাদে মদদের অভিযোগ তোলার পর বৃহস্পতিবার (৫ই জানুয়ারি) মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর থেকে সেই সাহায্য বন্ধের ঘোষণা আসে। এই ঘোষণাকে অবন্ধুত্বসুলভ আখ্যা দেন আসিফ। ওয়াশিংটন-ইসলামাবাদ সম্পর্কের প্রশ্নে ওয়াল স্ট্রিট জার্নালকে তিনি বলেন: যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আমরা জোটবদ্ধ নই। যে আচরণ (নিরাপত্তা সহযোগিতা স্থগিত) করা হয়েছে, তা কোনো মিত্রদেশের আচরণ হতে পারে না।

কথিত সন্ত্রাসবিরোধী যুদ্ধের নামে চারদিক থেকে অবরুদ্ধ আফগানিস্তানে ১৬ বছর ধরে জারি রয়েছে মার্কিন আগ্রাসন। আফগান যুদ্ধে সামরিক সরবরাহ ও সেনা পাঠানোর ক্ষেত্রে পাকিস্তান তাদের অপরিহার্য প্রবেশপথ। সে কারণেই যুক্তরাষ্ট্র পাকিস্তানকে একটা বড় পরিমাণের নিরাপত্তা ও সামরিক সহায়তা দিয়ে আসছে। নিরাপত্তা সহায়তা স্থগিতের বিপরীতে ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের সাক্ষাৎকারে পাকিস্তানের সাম্প্রতিক সন্ত্রাসবাদবিরোধী অভিযানের সফলতার প্রসঙ্গ উল্লেখ করেন খাজা আসিফ। সে সময় আফগান যুদ্ধে ইসলামাবাদের সমর্থনকে ভুল পদক্ষেপ আখ্যা দেন পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

খাজা আসিফ ওয়াল স্ট্রিট জার্নালকে বলেন: আমরা এমন একটা অবস্থার মধ্য দিয়ে যাচ্ছি যখন আফগান বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে অবস্থান নিলে পাকিস্তানের মাটিতেই যুদ্ধ শুরু হবে।

তার দাবি সেটাই যুক্তরাষ্ট্রের চাওয়া। তবে ইসলামাবাদ কখনও দেশের মাটিকে আফগান যুদ্ধের ময়দান হতে দেবে না। বিদেশ ডেস্ক।

About superadmin

Check Also

ইরাকের নির্বাচনে হস্তক্ষেপের চেষ্টা করছে সৌদি আরব: ইরাক

ইরাকের আসন্ন সংসদ নির্বাচনে প্রভাব বিস্তারের চেষ্টা করছে সৌদি আরব। আল-মায়াদিন টিভি চ্যানেলকে দেয়া সাক্ষাৎকারে ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *