Home / দুর্ঘটনা / আগুন পোহাতে গিয়ে নারী ও শিশুসহ তিন জনের মৃত্যু

আগুন পোহাতে গিয়ে নারী ও শিশুসহ তিন জনের মৃত্যু

শীত তাড়াতে আগুন পোহাতে গিয়ে দগ্ধ হওয়া নারী ও শিশুসহ ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে গতকাল।

রাজধানীর ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড সার্জারি ইউনিটে চিকিৎসাধীন ছিলেন তারা। মারা যাওয়া দু’ নারী হলেন গোপালগঞ্জের লোকজান বেগম (৬০) ও চাঁদপুরের খাদিজা বেগম (৩০)। এছাড়া ৮ বছরের শিশু সাবিনা থাকতো আশুলিয়ায়।

পরিবারের আবেদনের ভিত্তিতে বিনা ময়নাতদন্তে তাদের কাছে মৃতদেহ হস্তান্তর করেছে পুলিশ। এ খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেন শাহবাগ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. রবিউল ইসলাম। তিনি জানান, মৃতের স্বজনদের আবেদন ও ঘটনাস্থলের সংশ্লিষ্ট থানার অনুমতি সাপেক্ষে মৃতদেহগুলো স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

খাদিজা বেগমের (৩০) স্বামীর নাম শাহাদাত হোসেন। তাদের এক ছেলে ও দু’ মেয়ে আছে। স্বজন মো. জাকির হোসেন জানান, ৪ঠা জানুয়ারী বিকেলে হাজীগঞ্জ উপজেলার এনায়েতপুর গ্রামে নিজের বাড়িতে গ্যাসের চুলায় আগুন পোহাতে গিয়ে কাপড়ে আগুন লেগে দগ্ধ হন খাদিজা। পরে তাকে উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। পরদিন নিয়ে আসা হয় ঢামেক হাসপাতালে। সেখানে রবিবার দুপুরে মারা যান তিনি।

খাদিজার মতো গোপালগঞ্জের কাশিয়ানি উপজেলায় নিজের বাসায় চুলায় আগুন পোহাতে গিয়ে দগ্ধ হন লোকজান বেগম। উপ-পরিদর্শক (এসআই) রবিউল ইসলাম জানান: ৯ই জানুয়ারি রাজু নামে এক স্বজন তাকে হাসপাতালে ভর্তি করান। রবিবার দুপুর ১১টা ৫০ মিনিটে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে, বগুড়া সোনাতলা উপজেলার রানীপাড়া ফেরিঘাট এলাকার রহিদুল ইসলামের মেয়ে সাবিনা পরিবারের সঙ্গে থাকতো আশুলিয়ায়। সেখানকার বাডবাগান এলাকায় ৫ই জানুয়ারী সকালে বাসার সামনে আগুন পোহাতে গিয়ে দগ্ধ হয় শিশুটি। পরে তাকে উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। রবিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে তার মৃত্যু হয়। সূত্র: বাংলা ট্রিবিউন।

About superadmin

Check Also

বাসটি ৩২ লাশ নিয়ে ভেসে উঠলো

গোটা বাসটিকে তোলা যায়নি। ক্রেন দিয়ে যখন বাসটি টেনে উপরে তোলা হচ্ছিলো, তখন লাশ ভরা ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *