Breaking News
Home / আন্তর্জাতিক / তুরস্ক আফরিনে আরও একটি গ্রাম দখল করেছে

তুরস্ক আফরিনে আরও একটি গ্রাম দখল করেছে

সিরিয়ায় কুর্দিদের বিরুদ্ধে যুদ্ধরত তুর্কি সেনাবাহিনী ও ফ্রি সিরিয়ান আর্মির সদস্যরা দক্ষিণ আফরিনের আরও একটি গ্রামকে কুর্দিমুক্ত করার দাবি করেছে।

গতকাল (রবিবার) এক যৌথ অভিযানে উত্তর-পশ্চিম সিরিয়ার জিনদারেস এলাকার ইস্কানদার গ্রামটি কুর্দিমুক্ত করা হয়।

কুর্দি সন্ত্রাসীদের সাথে তুর্কি সেনাবাহিনী ও ফ্রি সিরিয়ান আর্মির প্রচণ্ড যুদ্ধের পর গ্রামটি নিয়ন্ত্রণে নেয় তুর্কি বাহিনী। এর মাধ্যমে তুরস্ক ও ফ্রি সিরিয়ান আর্মি আফরিনের ৪৮টি কৌশলগত এলাকা, একটি শহর, ৩১টি গ্রাম ও ১৩টি পাহাড় নিয়ন্ত্রণে নিয়েছে।

এদিকে, সিরিয়ায় চলমান অভিযান অপারেশন অলিভ ব্রাঞ্চে এ পর্যন্ত ১২৬৬ কুর্দি যোদ্ধাকে দমন করা হয়েছে বলে দাবি করেছে তুরস্ক। দেশটির সেনাবাহিনীর তরফ থেকে দেয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়, ২০শে জানুয়ারি থেকে শুরু হওয়া ঐ অভিযানে এ পর্যন্ত ১২৬৬ জন কুর্দিকে দমন করা হয়েছে। এর মাঝে শুধু গতকালই ৮৬ জনের বেশি কুর্দিকে দমন করা হয়েছে।

কুর্দি মিলিশিয়াদের নিয়ে একটি সীমান্তরক্ষী বাহিনী তৈরির ঘোষণা দেয় যুক্তরাষ্ট্র। এতে অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে সিদ্ধান্ত থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে সরে আসার আহ্বান জানায় তুর্কি রাষ্ট্রপতি এরদোগান। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্র তার সিদ্ধান্তে অটল থাকায় গত ২০শে জানুয়ারি থেকে আফরিনে কুর্দিদের বিরুদ্ধে সর্বাত্মক সামরিক অভিযান শুরু করে তুরস্ক। তাতে তুরস্কপন্থী ফ্রি সিরিয়ান আর্মির সদস্যরাও তুর্কি বাহিনীর সাথে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে যুদ্ধ করছে।

এর আগে আফরিনে কুর্দিদের বিরুদ্ধে চলমান অভিযান অপারেশন অলিভ ব্রাঞ্চ বিষয়ে তুর্কি রাষ্ট্রপতি এরদোগান বলেছেন: তুরস্ক ভূমি দখলের জন্যে নয়, বরং ন্যায়-বিচার প্রতিষ্ঠায় লড়াই করছে।প্রথমে আফরিনকে সন্ত্রাসীমুক্ত করেই অপারেশন অলিভ ব্রাঞ্চ শেষ করা হবে। দ্বিতীয় দফায় আফরিনে নিরাপদ অঞ্চল গড়ে তোলার পর সিরিয়া যুদ্ধে বাস্তুচ্যুত হয়ে যে ৩৫ লাখ মানুষ তুরস্কে আশ্রয় নিয়েছে, তাদেরকে প্রত্যাবাসন করা হবে। আনাদোলু এজেন্সি।

About superadmin

Check Also

আফগানিস্তানে আমেরিকা ব্যর্থ; রাশিয়ার সঙ্গে সম্পর্ক জোরদারে আগ্রহী পাকিস্তান

মঙ্গলবার মস্কোতে রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভের সঙ্গে যৌথ সংবাদ সম্মেলনে পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী খাজা মোহাম্মাদ আসিফ ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *