Breaking News
Home / জাতীয় / খাবার কিনতে রোহিঙ্গারা ত্রাণ বিক্রি করছে

খাবার কিনতে রোহিঙ্গারা ত্রাণ বিক্রি করছে

পছন্দের খাবার কিনতে ত্রাণসামগ্রী বিক্রি করছে কক্সবাজারের রোহিঙ্গা শরণার্থীরা। তাদের ত্রাণ এখন কক্সবাজার শহরের সর্বত্র পাওয়া যাচ্ছে। এমনকি বিভিন্ন আবাসিক এলাকার বাসাবাড়িতেও বিক্রি হচ্ছে ত্রাণের জিনিস। রোহিঙ্গারা সেসব খুবই কম দামে বাইরে বিক্রি করে দিচ্ছে। খাবার কিনতেই তা করছে তারা। গড়ে উঠেছে বেশ কয়েকটি ব্যবসায়িক সিন্ডিকেট। ক্যাম্পের ভেতর থেকে কম দামে সব নামি-দামি ত্রাণ সংগ্রহ করে তা বাজারে বিক্রি করছে তারা।

কক্সবাজারের শরণার্থী শিবিরগুলোয় ওয়ার্ল্ড ফুড প্রগ্রামসহ (ডব্লিউএফপি) বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক ত্রাণ সংস্থা ত্রাণ সরবরাহ করছে। তবে সংস্থাগুলোর সরবরাহ করা খাবারে বৈচিত্র্য কম। তাই, প্রতিদিন একই ধরনের খাবার খেতে খেতে হাঁপিয়ে উঠছে রোহিঙ্গারা। ফলে, ত্রাণের জিনিস বিক্রি করে পছন্দের খাবার কিনছে তারা। কুতুপালংয়ের শরণার্থী হওয়ার আগে মিয়ানমারে জেলে ছিলেন হামিদ আলী। শরণার্থী শিবিরে দেয়া খাবারে রুচি উঠে গেছে তার। ওয়ার্ল্ড ফুড প্রগ্রামের দেয়া খাবারে রয়েছে শুধু চাল আর ঢেড়স। আলী বলেন: প্রতিদিন ভাত ও ঢেড়স খেতে ভালো লাগে না। আমি সপ্তাহে এক বা দু’ দিন মাছ দিয়ে সবজি খেতে পছন্দ করি। কিন্তু মাছের স্বাদ ভুলেই গেছি।

ডব্লিউএফপিও স্বীকার করেছে, সম্প্রতি তাদের দেয়া খাবারে বৈচিত্র্যের ঘাটতি ও পুষ্টিগুণ কম রয়েছে।

চলাচলের ক্ষেত্রে সীমাবদ্ধতা ও খাবারে বৈচিত্র্যের অভাবে আলীর মতো অনেক রোহিঙ্গা তাদের পছন্দের খাবার পেতে অন্য উপায় খুঁজতে বাধ্য হচ্ছে। এক্ষেত্রে তাদের অন্যতম উপায় হচ্ছে ত্রাণের জিনিস বিক্রি করা। শরণার্থী শিবিরের পাশেই গড়ে ওঠা বাজারে তারা এগুলো বিক্রি করে থাকে। ইউএনএফপিএ, আইওএম, ইউকেএইড বা ইউএনএইচসিআরের দেয়া রান্নার তেল, কম্বল ও দুধের মতো শিশুখাদ্যসহ বিভিন্ন জিনিস বিক্রি করছে তারা। আল-জাজিরা।

About superadmin

Check Also

সাবেক প্রধানমন্ত্রীর ডিভিশন পাওয়ার বিষয়টি জেলকোডের কোথাও নেই: আইজি প্রিজন্স

কারাগারে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে সাধারণ বন্দির মতো রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছেন কারা অধিদফতরের মহাপরিদর্শক ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *