Breaking News
Home / ধর্ম / তাৎক্ষণিক তিন তালাক বিলের বিরুদ্ধে সোচ্চার ভারতের মুসলমান নারীরা

তাৎক্ষণিক তিন তালাক বিলের বিরুদ্ধে সোচ্চার ভারতের মুসলমান নারীরা

ভারতে তাৎক্ষণিক তিন তালাক বিলের প্রতিবাদে মুসলিম নারীরা বিভিন্ন রাজ্যে বিক্ষোভে সোচ্চার হয়েছেন। কেন্দ্রীয় সরকারের আনা তাৎক্ষণিক তালাক বিরোধী বিলের প্রতিবাদে গতকাল (মঙ্গলবার) বিজেপিশাসিত রাজস্থানের জয়পুরে সংবাদ সম্মেলনে মুসলিম নারীরা তাৎক্ষণিক তালাক বিলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

Image result for ৩ তালাক বিলের বিরুদ্ধে সোচ্চার ভারতের মুসলিম নারীরা

এতে বক্তারা বলেন: তালাক বিলের প্রতিবাদে মুসলমান নারীদের সবচেয়ে বড় মৌনমিছিল আগামীকাল (বুধবার) অনুষ্ঠিত হবে। তাতে অন্তত তিন লাখ মুসলমান নারী শামিল হবেন। মিছিল শেষে মুসলমান নারীদের এক প্রতিনিধি দল রাজভবনে পৌঁছে গভর্নরের কাছে স্মারকলিপি দেবেন।

সংবাদ সম্মেলনে অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল’ বোর্ডের সচিব মাওলানা মুহাম্মদ মাহফুজ উমরান, অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল’ বোর্ডের নারী শাখার প্রধান ড. আসমা জোহরা, চেন্নাইয়ের মুসলিম পার্সোনাল ল’ বোর্ডের সদস্যা ফাতিমা মুজাফফর এবং জয়পুরের মুসলিম পার্সোনাল ল’ বোর্ডের সদস্যা ইয়াসমিন ফারুকি প্রমুখ ছিলেন।

এদিকে, পশ্চিমবঙ্গের কোলকাতায় আগামী ৬ই মার্চ মুসলমান নারীরা কেন্দ্রীয় সরকারের তালাক বিলের প্রতিবাদে মহামিছিলে শামিল হবেন।

তালাক বিল ইসলাম ও শরীয়াবিরোধী

এ প্রসঙ্গে পশ্চিমবঙ্গের গার্লস ইসলামিক অর্গানাইজেশন-এর (জিআইও) দক্ষিণবঙ্গ শাখার সভানেত্রী মায়মুনা খাতুন মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রেডিও তেহরানকে বলেন: কেন্দ্রীয় সরকার যে তাৎক্ষণিক তালাক বিল এনেছে, তা ইসলাম ও শরীয়াবিরোধী। ইসলাম হলো একটি ভারসাম্যপূর্ণ জীবন বিধান। ইসলামে নারী ও পুরুষের নিজ নিজ অধিকার সুনিশ্চিত করা আছে। ব্যক্তি, পরিবার, সমাজ, বিবাহ, তালাক ইত্যাদি সমস্ত কিছুই ইসলামের ভারসাম্যপূর্ণ জীবন বিধানের উপরে প্রতিষ্ঠিত।

মায়মুনা খাতুন বলেন: সরকারের আনা তাৎক্ষণিক তালাক বিল স্ববিরোধিতায় ভরা। তাৎক্ষণিক তালাক দিলে মুসলিম পুরুষ তিন বছরের জন্য কারাগারে যাবেন এবং একইসঙ্গে তার পরিবারের ভরণপোষণ কীভাবে করতে পারবেন? তালাক বিলের প্রতিবাদে বিভিন্ন রাজ্যে মুসলিম নারীরা প্রতিবাদে সোচ্চার হয়েছেন। এক্ষেত্রে পশ্চিমবঙ্গও পিছিয়ে নেই। আগামী ৬ মার্চ কোলকাতায় তাৎক্ষণিক তালাক বিল প্রত্যাহারের দাবিতে মহামিছিলের আয়োজন করা হয়েছে। বিভিন্ন রাজ্যে প্রতিবাদ মিছিলের মাধ্যমে গণজাগরণ সৃষ্টি হবে এবং সরকারকে ঐ শরীয়া বিরোধী বিল প্রত্যাহার করতে বাধ্য করা হবে। অন্যথায় আমরা আরো বড় আন্দোলনে নামবো।

রাজস্থানে মুসলিম নারীদের বিক্ষোভ

এদিকে, গতকাল রাজস্থানের ঝুঞ্ঝুনুতে কয়েক হাজার মুসলমান নারী রাজপথে নেমে তাৎক্ষণিক তালাক বিলের বিরোধিতা করে বিক্ষোভ করেন। মিছিলের  শুরুতে তারা কারবালা ময়দানে সমবেত হন। সেখানে মুসলমান নারী বক্তারা তাদের ভাষণে বলেন: বিয়ে ও তালাকের বিষয়ে আমাদের শরীয়া ও কুরআনে সুস্পষ্ট বিধান আছে। সরকার বরং মুসলিম নারীদের শিক্ষা ও সামাজিক উন্নয়নের দিকে নজর দিক। বর্তমান সরকার মুসলিমদের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করছে – যা বরদাস্ত করা হবে না।

প্রায় দু’ কিলোমিটার দীর্ঘ প্রতিবাদ মিছিল শেষে মুসলমান নারীদের এক প্রতিনিধি দল এসডিএমের কাছে, রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে স্মারকলিপি দেন।

বিহারে মৌন মিছিল

এদিকে, সোমবার বিহারের পূর্ণিয়াতে কয়েক হাজার মুসলমান নারী কেন্দ্রীয় সরকারের তাৎক্ষণিক তালাক বিলের বিরোধিতায় মৌন মিছিল করেন। তাদের ঐ মিছিলের ফলে শহরে কয়েক ঘণ্টা ধরে যানজটের সৃষ্টি হয়। প্রতিবাদকারীরা প্ল্যাকার্ড, পোস্টার ও ব্যানার হাতে নিয়ে মিছিলের মাধ্যমে তাৎক্ষণিক তালাকবিরোধী বিল প্রত্যাহারের দাবি জানান। পরে তারা জেলা প্রশাসকের হাতে স্মারকলিপি দেয়। পার্সটুডে।

About superadmin

Check Also

পাকিস্তানে আজান সম্প্রচার না করলে টিভি লাইসেন্স বাতিল

আজান হচ্ছে দিনের সবচেয়ে বড় ব্রেকিং নিউজ। কাজেই, এখন থেকে পাকিস্তানের প্রতিটি টেলিভিশন চ্যানেলকে দিনে ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *