Home / আন্তর্জাতিক / শীর্ষ বৈঠক বাতিল কূটনৈতিক শিষ্টাচার বিরোধী: উঃ কোরিয়া

শীর্ষ বৈঠক বাতিল কূটনৈতিক শিষ্টাচার বিরোধী: উঃ কোরিয়া

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের পক্ষ থেকে শীর্ষ বৈঠক বাতিলের ঘোষণাকে অযৌক্তিক ও কূটনৈতিক শিষ্টাচার পরিপন্থি বলে মন্তব্য করেছে উত্তর কোরিয়া।

দেশটির নেতা কিম জং-উনের বরাতে রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা কেসিএনএ আজ (শুক্রবার) জানিয়েছে, গোটা বিশ্ব দু’ নেতার মাঝে আসন্ন বৈঠকের দিকে তাকিয়ে ছিলো। কাজেই, ট্রাম্প বৈঠক বাতিলের যে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, তাতে মার্কিন জনগণসহ বিশ্ববাসীর আশা-আকাঙ্ক্ষার প্রতিফলন ঘটেনি।

ট্রাম্প উঃ কোরিয়ার নেতা কিম জং-উনের সঙ্গে আগামী মাসের পরিকল্পিত বৈঠক বাতিল করে দেয়ার পর, পিয়ংইয়ং এ প্রতিক্রিয়া জানাল।

এদিকে উত্তর কোরিয়ার উপ পররাষ্ট্রমন্ত্রী কিম কাই-গোয়ান আজ (শুক্রবার) বলেছেন, দেশটি যে কোনো সময় আমেরিকার সঙ্গে সরাসরি আলোচনায় বসতে প্রস্তুত রয়েছে। শীর্ষ বৈঠক বাতিলের আকস্মিক ঘোষণা আমাদের জন্য ছিলো অপ্রতাশিত এবং এ ঘটনায় আমরা গভীর দুঃখ প্রকাশ করছি। আমরা সমস্যা সমাধানের জন্য যে কোনো সময় যে কোনো আকারে মুখোমুখি বৈঠকে বসতে আমাদের প্রস্তুতির কথা জানাচ্ছি।

কিম জং-উন ও ডোনাল্ড ট্রাম্পের মধ্যকার বহুল প্রত্যাশিত শীর্ষ বৈঠক আগামী ১২ই জুন সিঙ্গাপুরে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিলো। এটি অনুষ্ঠিত হলে, তা হতো মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও উত্তর কোরিয়ার শীর্ষ নেতাদের মাঝে প্রথম কোনো মুখোমুখি বৈঠক।

বৃহস্পতিবার কিমের কাছে পাঠানো এক চিঠিতে ট্রাম্প বলেছেন: আগামী ১২ই জুন যে বৈঠক হওয়ার কথা ছিলো তাতে যোগ দেয়া সম্ভব হচ্ছে না। সম্প্রতি কিম জং উন তার বিবৃতিতে আমেরিকার প্রতি প্রকাশ্য শত্রুতার মনোভাব দেখিয়েছেন।

দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে-ইনের সঙ্গে ওয়াশিংটনে বৈঠক করার দু’দিন পর, ট্রাম্প কিমের সঙ্গে বৈঠক বাতিলের ঘোষণা দিলেন। মুনের সঙ্গে ট্রাম্পের বৈঠককে বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে দেখা হচ্ছিলো। ধারণা করা হচ্ছিল – এর মাধ্যমে কিমের সঙ্গে ট্রাম্পের বৈঠক নিশ্চিত হবে। পার্সটুডে।

About superadmin

Check Also

মানবাধিকার পরিষদ থেকে আমেরিকার পদত্যাগকে স্বাগত জানালো রাশিয়া

জাতিসংঘ মানবাধিকার পরিষদ থেকে আমেরিকার বেরিয়ে যাওয়াকে স্বাগত জানিয়েছে রাশিয়া। মস্কো বলেছে, এ সংস্থা কিছুই ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *