Breaking News
Home / জাতীয় / কোটা আন্দোলনকারীদের ওপর আবারো হামলা

কোটা আন্দোলনকারীদের ওপর আবারো হামলা

বাংলাদেশে সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কার দাবিতে আন্দোলনরত ছাত্র-ছাত্রীদের ওপর আবারো হামলার ঘটনা ঘটেছে। আজ (সোমবার) সকাল ১১টার দিকে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে আন্দোলনকারীদের ঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী পতাকা মিছিল ও বিক্ষোভ করার জন্য জড়ো হওয়ার চেষ্টা করলে, তাদের ওপর হামলার ঘটনা ঘটে।

কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীরা অভিযোগ করে বলেন: হামলাকারীরা সবাই ছাত্রলীগের নেতা-কর্মী। তবে এ অভিযোগ অস্বীকার করেছে ছাত্রলীগ।

আন্দোলনকারীদের অভিযোগ, পতাকা মিছিল ও বিক্ষোভ শুরু করার আগে ১৫-২০ জন ছাত্রলীগ নেতা মোটরসাইকেলে করে শহীদ মিনারে আসেন। তারা এসে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক ফারুক হোসেনকে মারধর করে এবং মোটরসাইকেল দিয়ে তুলে নিয়ে যায়।

এর আগে শনিবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্হাগারের সামনে এ হামলার ঘটনা ঘটে। এতে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক নুরুল হক নুরসহ অন্তত তিনজন আহত হন।

রাশেদ ৫ দিনের রিমান্ডে

এর আগে, গতকাল কোটা সংস্কার আন্দোলনকারী বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের সমন্বয়কারী মুহাম্মদ রাশেদ খানকে গ্রেফতার করেছে ডিবি পুলিশ। রাজধানী শাহবাগ থানায় তথ্যপ্রযুক্তি আইনে ছাত্রলীগ কর্মীর দায়ের করা মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আজ তাকে আদালতে হাজির করে পাঁচ দিনের পুলিশ রিমান্ডে পাঠানো হয়েছে।

বিএনপির নিন্দা

এদিকে, সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কার আন্দোলনের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর ন্যাক্কারজনক ও বর্বরোচিত হামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে বিএনপি।

দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর আজ সোমবার এক বিবৃতিতে বলেন, বর্তমান আওয়ামী শাসকগোষ্ঠীর গণবিরোধী কার্যকলাপ এখন বিভৎসরূপে আত্মপ্রকাশ করেছে। সেইজন্য সরকার জনগণের ভিতরের নানা শ্রেণী-পেশার মানুষের পক্ষ থেকে কোনো দাবির আওয়াজকে নিষ্ঠুরভাবে দমন করতে দ্বিধা করে না এবং তাদের ন্যায়সঙ্গত ও যৌক্তিক দাবিকে অগ্রাহ্য করতেও পিছপা হয় না। চাকরিতে কোটা সংস্কার নিয়ে ইতোপূর্বে জাতীয় সংসদে প্রধানমন্ত্রীর দেয়া প্রতিশ্রুতি রক্ষা দূরের কথা, বরং কোটা সংস্কার আন্দোলনকারিদের ওপর ঢাকা ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়সহ দেশের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নতুন করে ক্ষমতাসীন দলের ছাত্র সংগঠনকে লেলিয়ে দিয়ে হামলার মাধ্যমে গুরুতর আহত করা ও পুলিশ দিয়ে গ্রেফতার করানো কখনোই সুস্থ মানসিকতার পরিচয় বহন করে না। দেশের বিবেকবান কোনো মানুষই সর্বোচ্চ পর্যায় থেকে প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ করে এধরনের বিবেকবর্জিত নিষ্ঠুরতা প্রদর্শন কোনোভাবেই মেনে নিতে পারে না।

পরিকল্পিত ষড়যন্ত্রের অংশ: হানিফ

তবে, আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেছেন, বিএনপি-জামায়াত যখন সরকারের বিরুদ্ধে কোন আন্দোলন করে সুবিধা করতে পারেনি তখন ছাত্রদেরকে কোটা সংস্কারের নাম করে পেছন থেকে মদদ দিয়ে পরিকল্পিতভাবে একটি অস্থিতিশীল পরিবেশ তৈরি করার চেষ্টা করছে। কোটা সংস্কার নিয়ে যে কথা-বার্তা চলছে তা পরিকল্পিত ষড়যন্ত্রের অংশ ছাড়া কিছু নয়। কোটা সংস্কারের সঙ্গে আসলে সাধারণ ছাত্র-ছাত্রীর কোনো সম্পর্ক নেই।

সোমবার কুষ্টিয়া শহরের নিজ বাসভবনে দলীয় নেতা কর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি আরও বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির বাসভবনে হামলা কোন ছাত্র আন্দোলনের অংশ হতে পারে না। এই ঘটনাগুলো প্রমাণ করে কোটা সংস্কার নিয়ে আন্দোলন বিএনপি-জামায়াতের যড়যন্ত্রের অপকৌশল। ছাত্রলীগ ছাত্র সংগঠনের ঐতিহ্যের ধারক-বাহক। সেই ছাত্র সংগঠন নিয়ে কটূক্তি তারাই করতে পারে যারা স্বাধীনতার চেতনায় বিশ্বাসী নয়। ছাত্রলীগ দ্বারা কখনই বিশ্ববিদ্যালয়সহ কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পরিবেশ নষ্ট হয়নি আশা করি কখনো হবে না।

কোটা সংস্কারের বিষয়টি সহজ নয়: সচিব

এদিকে, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম বলেছেন, সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারের বিষয়টি সরকারের ঊর্ধ্বতন পর্যায়ে সক্রিয় বিবেচনাধীন রয়েছে। আমাদের নিচের লেভেলে এখনো ট্রান্সমিটেড হয়নি, তবে এটা সরকারের…। আসলে বিষয়টি আপনারা যতো সহজভাবে বিশ্লেষণ করছেন এতো সহজ নয়, জটিল আছে। এটি অনেক বিচার-বিশ্লেষণ করে সিদ্ধান্ত আসবে, তার আলোকে আমরা পরবর্তী কার্যক্রম গ্রহণ করব।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে সোমবার মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকের পরে সচিবালয়ে ব্রিফিংয়ে এক প্রশ্নের জবাবে সচিব একথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন। পার্সটুডে।

About superadmin

Check Also

রোহিঙ্গাদের দ্রুত ফিরিয়ে দেয়া কঠিন: পররাষ্ট্র সচিব

বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক বলেছেন: প্রত্যাবাসন একটি জটিল প্রক্রিয়া। তাই, মিয়ানমার থেকে আসা রোহিঙ্গাদের ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *